করোনা মোকাবিলায় সার্কভুক্ত দেশের পারস্পরিক সহযোগিতা প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, নরেন্দ্র মোদিকে বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। কেননা তিনি সার্কভুক্ত দেশের নেতৃবৃন্দকে এক করেছেন।
করোনাভাইরাস মোকাবিলা নিয়ে সার্কভুক্ত দেশের প্রধানদের ভিডিও কনফারেন্সে অংশ নিয়ে তিনি এ কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, করোনা মোকাবিলায় আমরা তিনটি কমিটি করেছি। আমাদের দেশে যারা করোনায় আক্রান্ত, তারা বিদেশ থেকে এসেছেন। আমরা আমাদের হাসপাতাল প্রস্তুত রেখেছি।

বাংলাদেশ সময় রোববার বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে কনফারেন্স শুরু হয়। কনফারেন্সের শুরুতে ভাইরাস থেকে নাগরিকদের সুরক্ষার কৌশল নিয়ে কথা বলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।তিনি বলেন, আমরা করোনা মোকাবিলায় সচেতনতা বৃদ্ধিতে কাজ করছি। আমাদের স্কুলগামী শিশুদের মধ্যেও সচেতনতা সৃষ্টি করা হচ্ছে। একই সঙ্গে মিলে এ রোগ মোকাবিলা করতে হবে। সার্কভুক্ত স্বাস্থ্য মন্ত্রী ও সচিবরাও এ ধরণের ভিডিও কনফারেন্স করতে পারে। ।

করোনা প্রতিরোধে সার্ক নেতারা ভিডিও কনফারেন্সে

বিশ্ব মহামারি করোনাভাইরাস মোকাবিলায় সার্কভুক্ত দেশগুলোর প্রধানদের মধ্যে ভিডিও কনফারেন্স আয়োজনের আহবান জানান ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। গত শুক্রবার (১৩ মার্চ) এ নিয়ে দুটি টুইট করেন তিনি।

টুইটে নরেন্দ্র মোদি বলেন, দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর উচিৎ করোনাভাইরাস প্রতিরোধে শক্তিশালী কৌশল নির্ধারণ করা, যাতে করে অঞ্চলটির মানুষদের সুস্থতা নিশ্চিতে কোনো চেষ্টার ত্রুটি না থাকে।

প্রথম টুইটে তিনি বলেন, আমাদের গ্রহটি এখন করোনাভাইরাসের সঙ্গে যুদ্ধ করছে। বিভিন্নভাবে সরকারগুলো ও দেশের জনগণ করোনা মোকাবেলায় সর্বোচ্চ শক্তি ব্যয় করছে। দক্ষিণ এশিয়া এমন এক অঞ্চল যেখানে বিশ্বের মোট জনসংখ্যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক বাস করছে। তাই আমাদের উচিৎ তাদের সুস্বাস্থ্য নিশ্চিতে সব ধরনের প্রচেষ্টা চালু রাখা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here