ঝালকাঠিতে চাঁদাবাজী মামলায় আওয়ামী লীগ নেতা ও পৌর কাউন্সিলর হুমায়ুন কবির খানের ছেলে ও ভাইকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শনিবার রাতে শহরের পালবাড়ি এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশ জানায়, আদালতের গ্রেপ্তারি পরোয়ানাভুক্ত আসামী কাউন্সিলর হুমায়ুন কবিরের ছেলে আরিফুর রহমান খান ও সৎভাই রুবেল খান শহরের পালবাড়ি এলাকায় অবস্থান করছিলেন। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে শহরের কিফাইতনগর এলাকার জেহাদ বেপারী বাদী হয়ে গত বছরের ১৩ ডিসেম্বর মামলা দায়ের করেন।

 

মামলায় পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি হুমায়ুন কবির খানকেও আসামী করা হয়। তিনি বর্তমানে পলাতক রয়েছেন। হুমায়ুন কবির খান ও তাঁর লোকজন জেহাদ বেপারীর কাছে বিভিন্ন সময় চাঁদা দাবি করে আসছিলেন বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়।

জানা যায়, ১২ ডিসেম্বর দুপুরে ঝালকাঠি শহরের শিশু পার্কে জেলা আওয়মী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলন শেষে বিকেলে বাড়ি ফেরার পথে হুমায়ুন কবিরের নেতৃত্বে কয়েকজন যুবক যুবলীগনেতা কামাল শরীফসহ তাঁর লোকজনের ওপর হামলা করে। এতে কামাল শরীফ, তাঁর বাবা সালেক শরীফ, ভাই জামাল শরীফ, ইদ্রিস শরীফ, ইলিয়াছ শরীফ ও সমর্থক জেহাদ বেপারীসহ ১২জন গুরুতর আহত হয়। চাঁদার টাকা না পেয়ে হামলা চালানো হয়েছে দাবি করে জেহাদ বেপারী ঝালকাঠি থানায় মামলা দায়ের করেন।

ঝালকাঠি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খলিলুর রহমান বলেন, রুবেল ও আরিফকে গ্রেপ্তারের পরে রবিবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here