ঝালকাঠি শহরের কলেজ মোড়ের লিপি মহলের মালিক প্রবাসী আব্দুস সালামের স্ত্রী লিপি বেগমকে চেক প্রতারণার (ডিজঅনার) মামলায় ছয় মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

সেই সঙ্গে মামলার বাদীর পাওনা ছয় লাখ টাকা ফেরত দেয়ার আদেশ দিয়েছেন আদালত। সোমবার দুপুরে ঝালকাঠির অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক এসকেএম তোফায়েল হাসান এ আদেশ দেন। এ সময় লিপি বেগম আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, প্লট বিক্রির কথা বলে ব্যবসায়ী মো. রুহুল আমীন রুবেলের কাছ থেকে ছয় লাখ টাকা নিয়ে বায়না চুক্তি করেন লিপি বেগম। পরে ব্যবসায়ী রুহুল আমীনকে চুক্তি অনুযায়ী প্লট বুঝিয়ে দেননি লিপি বেগম। এ অবস্থায় টাকা ফেরত চাইলে টাকাও দেননি। বিষয়টি নিয়ে স্থানীয়ভাবে চাপ প্রয়োগ করলে ব্যবসায়ী রুহুল আমীনকে আল-আরাফাহ ইসলামী ব্যাংকের অনুকূলে ছয় লাখ টাকার একটি চেক দেন লিপি বেগম।

রুহুল আমীন চেক নিয়ে টাকা তুলতে গিয়ে দেখেন ব্যাংকের ওই অ্যাকাউন্টে টাকা নেই। বিষয়টি লিপি বেগমকে জানানো হলে টালবাহানা শুরু করেন। উপায় না পেয়ে আদালতে মামলা করেন ব্যবসায়ী রুহুল আমীন।

মামলার বিচার কার্যক্রম শুরু হলে নিজেকে বাঁচাতে বাদীর নামে চেক চুরির মামলা করেন লিপি বেগম। আদালত মামলার সাক্ষীদের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আসামি লিপি বেগমকে ছয় মাসের কারাদণ্ড দেন। একই সঙ্গে মামলার বাদীর পাওনা ছয় লাখ টাকা পরিশোধের আদেশ দিয়ে লিপিকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here