বরগুনার খাজুরতলা গ্রামে স্বামী খলিলুর রহমানের (৩৪) পরকিয়ার জেরে স্ত্রী চিনি বেগম (৪২) নিজের গায়ে আগুন দিয়েছেন। সদর উপজেলার ২নং গৌরিচন্না ইউনিয়নের দঃ খাজুরতলা গ্রামের আদর্শ গ্রাম বস্তিতে সোমবার বিকেল ৫ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, স্বামী খলিলুর রহমান পেশায় বরগুনার একটি সরকারী প্রাইমারী স্কুলের শিক্ষক এবং বরগুনা ইসমালী ফাউন্ডেশনেও চাকরি করেন। প্রায় ৮ বছর আগে খলিল যখন পড়াশুনা করতেন চিনি বেগম তখন বাজারে কবুতর বিক্রি করনে। এ সময় খলিল ও চিনি বেগমের মধ্যে প্রেম এবং পরে তারা বিয়ে করেন। চিনি বেগম খলিলের সমস্ত খরচ চালাত।

উল্লেখ্য, খলিল অবিবাহিত ছিল আর চিনি ছিল স্বামী পরিত্যাক্তা ও ২ সন্তানের মা। তাদের সংসার ভালই চলে আসছিল। এক ছেলে সন্তানও জন্ম হয় তাদের ঘরে। খলিল সরকারি চাকরি পাওয়ার পরই পরকীয়া শুরু করে এবং চিনির সাথে সম্পর্কের অবণতি ঘটে। তাদের প্রায়ই ঝগড়া হত, একপর্যায়ে সোমবার কথাকাটাকাটির একপর্যায়ে চিনি বেগম গায়ে কেরোসিন ঢেলে আত্নহত্যা করার চেষ্টা করেন। অগ্নিদগ্ধ চিনি বেগমকে স্থানীয়রা বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে নেয়।

এ ব্যাপারে থানায় এখনো কোনো অভিযোগ হয়নি বলেন জানা তার বোন শিউলি বেগম। কর্তব্যরত ডাক্তার জানায় চিনির অবস্থা আশংকাজনক এবং রাতেই বরিশাল রেফার করতে হতে পারে।

এ ব্যাপারে এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। খলিল পলাতক রয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here