পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া পৌরসভা এলাকা থেকে পাঁচ ভুয়া ডাক্তারকে আটক করেছে র‌্যাব-৮।

সোমবার দুপুরে ভান্ডারিয়া পৌর শহরে অভিযান চালিয়ে চারজন ভুয়া দন্ত চিকিৎসক ও একজন ভুয়া হারভাঙা চিকিৎসককে আটক করা হয়।

পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে বিভিন্ন মেয়াদে তাদের কারাদণ্ডাদেশ দেয়া হয়।

বরিশাল র‌্যাব-৮ এর এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, জনতা ডেন্টাল কেয়ারের মো. ফাইজুল হক রানা, মডার্ন ডেন্টাল কেয়ারের মো. বাবুল হোসেন, মহিউদ্দিন আহম্মেদ পলাশ, জসিম উদ্দিন শাহীন ও শামীম আকনের ক্লিনিক ভবন মালিক আব্দুল কাদের হাওলাদার।

এছাড়া আটককৃত পাঁজজন ভুয়া চিকিৎসকের পাঁচটি চেম্বার ও ক্লিনিক সিলগালা করা হয় এবং ক্লিনিকের ঘর মালিককেও জরিমানা করা হয়।

র‌্যাব জানায়, ভাণ্ডারিয়া পৌরসভা এলাকায় কয়েকজন ভুয়া ডাক্তার লোকজনের সঙ্গে প্রতারণার মাধ্যমে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছিল। এমন খবর পেয়ে র‌্যাব-৮ এর বরিশালের একটি দল অভিযান চালিয়ে পাঁচ ভুয়া ডাক্তারকে আটক করে। পরে তাদের বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড ও জরিমানা করা হয়।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. ইয়াসিন খন্দকার জানান, আটককৃতরা তাদের স্বপক্ষে কোনও বৈধ কাগজপত্র দেখাতে ব্যর্থ হওয়ায় এবং দোষ স্বীকার করায় বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দেওয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here