ইসরায়েলকে নিশ্চিহ্ন করে ও মধ্যপ্রাচ্য থেকে মার্কিন সব ঘাঁটি সরিয়ে দেওয়ার মাধ্যমে কাসেম সোলাইমানির রক্তের দাম নেওয়া হবে। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার রাতে এমন মন্তব্য করেছেন ইরান সমর্থিত ইরাকি সংগঠন হাশদ আল শাবির নেতা আল হায়দারি।

ইরানভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ফার্স নিউজ এজেন্সি জানায়, ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলি খামেনির নির্দেশে মধ্যপ্রাচ্যের যে কোনো মার্কিন ঘাঁটি ও ইসরায়েলে হামলা চালাতে প্রস্তুত ইরাকি সংগঠন হাশদ আল শাবি। মঙ্গলবার রাতে এমন তথ্যই জানিয়েছেন সংগঠনটির অন্যতম শীর্ষ নেতা আল হায়দারি।

তিনি বলেন, সোলাইমানি হত্যার প্রতিশোধ নেওয়ার জন্য সব ‘অপশন’ প্রস্তুত আছে। সর্বোচ্চ নেতা (আয়াতুল্লাহ আলি খামেনি) যে কঠিন প্রতিশোধের নির্দেশ দেবেন সেটাই পালন করা হবে। ইসরায়েলকে নিশ্চিহ্ন করে ও মধ্যপ্রাচ্য থেকে মার্কিন সব ঘাঁটি সরিয়ে সোলাইমানির রক্তের দাম নেওয়া হবে। মধ্যপ্রাচ্যের ঘাঁটিগুলো ও ইসরায়েল আমাদের ক্ষেপণাস্ত্রের আওতায় আছে। আল্লাহর রহমতে পুরো অঞ্চল স্বাধীন করা হবে।

আল হায়দারি আরও বলেন, জেনারেল সোলাইমানি শুধু ইরানের নেতা ছিলেন না। এ কারণে সোলাইমানি হত্যার বদলা নেবে লেবানন, সিরিয়া, বাহরাইন, ফিলিস্তিন, ইয়েমেনসহ অন্য অনেক দেশ।

প্রসঙ্গত, গত শুক্রবার (৩ জানুয়ারি) ভোররাতে ইরাকে যুক্তরাষ্ট্রের বিমান হামলায় নিহত হন ইরানের শীর্ষ সামরিক কর্মকর্তা জেনারেল কাসেম সোলাইমানি। তিনি ইরানের বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর (আইআরজিসি) এলিট শাখা কুদস ফোর্সের প্রধান ছিলেন।

সোলাইমানি নিহত হওয়ার পর থেকে যুক্তরাষ্ট্র ও ইরানের মধ্যে সর্বোচ্চ উত্তেজনা বিরাজ করছে। কয়েকদিন ধরে যুক্তরাষ্ট্রকে পাল্টা হামলার হুমকি দিয়ে আসছিল ইরান। অবশেষে বুধবার ভোররাতে ইরাকে অবস্থিত মার্কিন ঘাঁটিতে হামলা চালায় তারা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here